ডেস্ক রিপোর্ট

১৬ জানুয়ারি ২০২৪, ১:০৮ অপরাহ্ণ

হাড় হিম শীতে কাঁপছে যুক্তরাষ্ট্র

আপডেট টাইম : জানুয়ারি ১৬, ২০২৪ ১:০৮ অপরাহ্ণ

শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : উত্তর মেরুর আর্কটিক অঞ্চল থেকে আগত শৈত্যপ্রবাহের জেরে যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি অঙ্গরাজ্যের প্রায় সবগুলোতে হাড় কাঁপানো ঠান্ডা শুরু হয়েছে। গড়ে অধিকাংশ প্রদেশে তাপমাত্রা নেমেছে মাইনাস ৩০ ডিগ্রি নিচে।

সোমবার রাতে দেশটির মধ্যাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্য আইওয়াতে তাপমাত্রা নেমে গিয়েছিল মাইনাস ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। ভয়াবহ এই শীতের মধ্যেই আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী মনোনয়নের জন্য রাজ্য শাখার নেতা-কর্মীদের সমাবেশ (ককাস) ডেকেছিল যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধী দল রিপাবলিকান পার্টির আইওয়া শাখা। সেই ককাসে রিপাবলিকান সদস্যরা জানিয়েছেন, ২০২৪ সালের নভেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তারা সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকেই দলের প্রার্থী হিসেবে দেখতে চান।

ককাসের পর আইওয়াতে ট্রাম্পের পক্ষে প্রচারাভিযান চালানোরও শিডিউল ছিল। কিন্তু প্রবল শীত এবং তুষারঝড়ের কারণে তা স্থগিত করা হয়েছে।

তবে আইওয়ার চেয়েও তাপমাত্রা বেশি নেমেছে অন্যান্য অঙ্গরাজ্যে। যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দপ্তর ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিসের (এনডব্লিউএস) তথ্য অনুযায়ী, সোমবার দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্য মন্টানা এবং মধ্যাঞ্চলীয় দুই অঙ্গরাজ্য দক্ষিণ ডাকোটা এবং উত্তর ডাকোটায় তাপমাত্রা নেমে গেছে মাইনাস ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

এদিকে ব্যাপক ঠান্ডা, তুষারঝড়, ও বৃষ্টির কারণে রোববার থেকে যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি অঙ্গরাজ্যের অধিকাংশ বিমানবন্দরে বাতিল হয়েছে অজস্র ফ্লাইট। মার্কিন ফ্লাইট-ট্র্যাকিং ওয়েবসাইট ফ্লইটঅ্যাওয়েয়ার সোমবার এক বিবৃতিতে নিশ্চিত করেচে এই তথ্য।

অতিমাত্রায় শীতের কারণে সাধারণ গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুৎ এবং গ্যাসের চাহিদার উল্লম্ফণ ঘটেছে। অতিরিক্ত এই চাহিদা মেটাতে গিয়ে হিমসিম খাচ্ছে পরিষেবা সংস্থাগুলো। ইতোমধ্যে দেশটির টেক্সাস, পেনসিলভেনিয়া, মিশিগানসহ বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের লাখ লাখ ঘরবাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

দেশটির অন্যতম বৃহৎ বিদ্যুৎ পরিষেবা সংস্থা ইলেকট্রিক রিলায়াবিলিটি কাউন্সিল অব টেক্সাস (এরকট) এক বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে, ‘বিদ্যুৎ চাহিদা ব্যাপকভাবে বেড়ে যাওয়ায় আপাতত আমাদের পক্ষে সার্বক্ষণিক বিদ্যুৎ সেবা প্রদান সম্ভব হচ্ছে না। সম্মানিত গ্রাহকদের অনুরোধ— বাড়িতে যখন বিদ্যুৎ থাকে, তখন তা সংরক্ষণ করুন।’

রয়টার্স

শেয়ার করুন