ডেস্ক রিপোর্ট

১০ জানুয়ারি ২০২৪, ৫:৩০ অপরাহ্ণ

সিলেটে ওসমানী মেডিকেলে ৬ লাখ টাকাসহ দুজনকে আটকের ঘটনায় মামলা

আপডেট টাইম : জানুয়ারি ১০, ২০২৪ ৫:৩০ অপরাহ্ণ

শেয়ার করুন

সিলেট প্রতিনিধি: সিলেটের এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ছয় লাখ টাকাসহ দুই সিনিয়র স্টাফ নার্সকে আটকের ঘটনায় তিনজনের নামে মামলা করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাতে হাসপাতালটির ভারপ্রাপ্ত প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোহাম্মদ হানিফ বাদী হয়ে প্রতারণাসহ বিভিন্ন অভিযোগে মামলা করেন। মামলার পর আটক দুই নার্সকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

মামলার তিন আসামি হলেন সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নার্সিং অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও সিনিয়র স্টাফ নার্স ইসরাইল আলী সাদেক, সিনিয়র স্টাফ নার্স আমিনুল ইসলাম ও সুমন চন্দ্র দেব। মামলার পর আটক আমিনুল ইসলাম ও সুমন চন্দ্র দেবকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে পুলিশ। ইসরাইল আলী সাদেক পলাতক।

মামলার অভিযোগ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ৯ বছর ধরে বরখাস্ত অবস্থায় ছিলেন সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এক স্টাফ নার্স। সম্প্রতি তিনি কর্মক্ষেত্রে যোগ দেন। এত বছরে তাঁর বেতন-ভাতাসহ প্রায় ৩৬ লাখ টাকা বকেয়া পড়ে। নার্সিং অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ইসরাইল আলীর সঙ্গে চুক্তি হয়েছিল বকেয়া বেতন-ভাতার টাকা দ্রুত তুলে দেওয়ার জন্য। বিনিময়ে তাঁদের ১০ লাখ টাকা দিতে হবে। পরে দর-কষাকষিতে সাড়ে ৬ লাখ টাকায় রফা হয়েছিল। গতকাল সকালে ওই স্টাফ নার্স নিজের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলে তাঁদের কথামতো টাকা নিয়ে আমিনুল ইসলামের কাছে যান। এ সময় পুলিশ আমিনুলকে টাকাসহ আটক করে। পরে তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সুমন চন্দ্র দেবকে আটক করা হয়।

সিলেট কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মঈন উদ্দিন বলেন, প্রতারণাসহ বিভিন্ন অভিযোগে তিনজনের নামে মামলা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে দুজনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকি একজনকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

শেয়ার করুন