ডেস্ক রিপোর্ট

৯ জানুয়ারি ২০২৪, ১০:০৯ অপরাহ্ণ

ভোট বর্জনের গণরায় মেনে ডামি নির্বাচন বাতিল করার দাবিতে সিলেটে বিক্ষোভ

আপডেট টাইম : জানুয়ারি ৯, ২০২৪ ১০:০৯ অপরাহ্ণ

শেয়ার করুন

অধিকার ডেস্ক: জনগণকে অভিনন্দন জানিয়ে এবং ভোট বর্জনের গণরায় মেনে ডামি নির্বাচন বাতিল, নির্দলীয় তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে বাম গণতান্ত্রিক জোট সিলেট জেলা শাখার উদ্যোগে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মঙ্গলবার ( ৯ জানুয়ারি) বিকাল সাড়ে চারটায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদমিনারের সামনে বাম গণতান্ত্রিক জোট সিলেট জেলা শাখার সমন্বয়ক, সিপিবি সাধারণ সম্পাদক খায়রুল হাসান এর সভাপতিত্বে ও বাসদ (মার্ক্সবাদী) জেলা সদস্য সন্জয় কান্ত দাশ এর সঞ্চালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন সিপিবি জেলা সভাপতি সৈয়দ ফরহাদ হোসেন, বাসদ (মার্কসবাদী) জেলা আহ্বায়ক উজ্জল রায়, বাসদ জেলা আহ্বায়ক আবু জাফর, সিপিবি সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আনোয়ার হোসেন সুমন, বাসদ জেলা সদস্য সচিব প্রণব জ্যোতি পাল, বিপ্লবী
কমিউনিস্ট লীগের ডাঃ হরিধন দাশ, বাসদ জেলা সদস্য জুবায়ের আহমদ চৌধুরী সুমন, উদীচী জেলা শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক রতন দেব, সিপিবি জেলা সদস্য এডভোকেট নিরঞ্জন দাশ খোকন, বাসদ(মার্কসবাদী) জেলা সদস্য মুখলেছুর রহমান প্রমূখ।

বিক্ষোভ সমাবেশ শেষে একটি মিছিল বের হয়ে আম্বরখানা পয়েন্টে গিয়ে শেষ হয়।

বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ ভয়-ভীতি, প্রলোভন উপেক্ষা করে একতরফা প্রহসনের ভোট বর্জন করায় গণতন্ত্র প্রিয় জনগণকে অভিনন্দন জানান।

নেতৃবৃন্দ বলেন,বাম গণতান্ত্রিক জোট ৭ জানুয়ারি নির্বাচনের নামে প্রহসনের নাটকে অংশগ্রহণ না করার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন। সেই আহ্বানে সাড়া দিয়ে জনগণ ভোট কেন্দ্রে না গিয়ে এই প্রহসনের নির্বাচনী নাটককে প্রত্যাখ্যান করেছে। ‘আমি আর ডামি’র এই নির্বাচনে সামাজিক সুরক্ষা কার্ড বাতিলের হুমকি ও নগদ টাকার প্রলোভন দিয়েও ভোটার উপস্থিত করতে সরকার ও আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশন সম্পূর্ণ রূপে ব্যর্থ হয়েছে। গণদাবি ও জনমত উপেক্ষা করে একতরফা নির্বাচনের নামে সরকার যে তামাশার জন্ম দিয়েছে, তা বাংলাদেশের নির্বাচনী ইতিহাসে এক কলঙ্কজনক অধ্যায় হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকবে।এই নির্বাচনে রাজনৈতিক -অর্থনৈথিক সংকট আরও ঘনীভূত হবে ।

বক্তারা প্রহসনের নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে আরো বলেন, ভোট বর্জনের গণরায় মেনে নিয়ে সরকারের উচিত অবিলম্বে পদত্যাগ করে সকল রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণে নির্দলীয় তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা। একই সাথে আওয়ামী ফ্যাসিবাদী দুঃশাসনের বিরুদ্ধে ভোট ,ভাত ও গণতন্ত্রের দাবিতে রাজপথের আন্দোলনে সামিল হওয়ার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানান।

শেয়ার করুন