ডেস্ক রিপোর্ট

২৪ মে ২০২৪, ১:৪৮ পূর্বাহ্ণ

বাঙালি মুসলমানদের মধ্যে শিল্পচর্চা ধ্বংস হয়ে গেছে: মামুনুর রশীদ

আপডেট টাইম : মে ২৪, ২০২৪ ১:৪৮ পূর্বাহ্ণ

শেয়ার করুন

অধিকার ডেস্ক: বাঙালি মুসলমানদের মধ্যে শিল্প চর্চা ধ্বংস হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন নাট্যজন মামুনুর রশীদ। অকাল প্রয়াত থিয়েটার কর্মী, টিভি নাট্য নির্মাতা তারেক খানের স্মরণসভায় এ কথা বলেন তিনি। অনুশীলন প্রাক্তনীর উদ্যোগে আজ বৃহস্পতিবার (২৩ মে) বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সেমিনার কক্ষে তারেক খান স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়।

স্মরণসভায় মামুনুর রশীদ বলেন, অনুশীলন নাট্যদলের সাবেক নিবেদিত প্রাণ তারেক খান মুসলিম পরিবারের মধ্যে সর্বশেষ সংগ্রামী শিল্পী। দারিদ্র্য ও পরিবারের মতের বিরুদ্ধে এত সংগ্রাম করে আর কেউ আসবে বলে মনে হয় না। তারেক খান ব্যক্তিগত জীবনে ছিলেন মামুনুর রশীদের মামাতো ভাই ও দীর্ঘদিনের নাট্যসারথী।

অনুশীলন নাট্যদলের কর্ণধার মলয় ভৌমিক তার স্মৃতিচারণে বলেন, দু-একটি ব্যতিক্রম বাদে বাংলাদেশের প্রায় সব শিল্পীরই নিজের পরিবারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে শিল্পী হয়ে উঠতে হয়। তারেক খানের বেড়ে ওঠা ঠিক তেমনই। বিশ্ববিদ্যালয়ে চারুকলা বিভাগে পড়াতে তার বাবা শুরুতে আপত্তি করলেও পরে মেনে নিয়েছিলেন। পরে তারেক খানের বাবা তাকে নিয়ে গর্ব করতেন বলেও স্মৃতিচারণ করেন মলয় ভৌমিক।

স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত সমাজকর্মী অ্যাডভোকেট আব্রাহম লিংকন বলেন, সংস্কৃতি চর্চা যারা করেন তাদের অনেকের মধ্যে রাজনীতি নেই। কিন্তু তারেক খান এমন একজন সংস্কৃতিকর্মী, যিনি রাজনীতিতেও ছিলেন। অনুশীলন প্রাক্তনীর কর্মীদের মধ্যে এই বোধ আছে।

নাট্যকর্মী তারেক খানের স্মৃতিচারণ করেন তার মেয়ে গল্পকার ও অভিনেতা উনাইসা তিজান খান, অনুশীলন নাট্যদল ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রগতিশীল সাংস্কৃতিক সংগঠন ও রাজনৈতিক ছাত্র সংগঠনের প্রাক্তন কর্মীরা। স্মরণসভায় সভাপতিত্ব করেন অনুশীলন প্রাক্তনীর আহ্বায়ক কামাল আহমেদ এবং সঞ্চালনা করেন দীপু মাহমুদ ও আল জাবির। স্মরণসভায় গান ও কবিতার মাধ্যমে তারেক খানের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন কণ্ঠশিল্পী মানসী, বিপ্লব, আবৃত্তিশিল্পী সৈয়দ আপন আহসান প্রমুখ।

থিয়েটার কর্মী, টিভি নাট্য নির্মাতা তারেক খান গত ১৫ মে গাজী টিভিতে কর্মরত অবস্থায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।

শেয়ার করুন