ডেস্ক রিপোর্ট

৯ জানুয়ারি ২০২৪, ১১:৪৭ অপরাহ্ণ

প্রহসনের নির্বাচন বাতিল করতে নারায়ণগঞ্জে বাম জোটের মিছিল

আপডেট টাইম : জানুয়ারি ৯, ২০২৪ ১১:৪৭ অপরাহ্ণ

শেয়ার করুন

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: জনগণ কর্তৃক প্রত্যাখ্যাত প্রহসনের নির্বাচন বাতিল ও সরকার পদত্যাগ করে অবিলম্বে তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচন দেয়ার দাবিতে আজ বিকাল ৪ টায় বাম গণতান্ত্রিক জোটের দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসাবে নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও শহরে মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

বাম গণতান্ত্রিক জোট নারায়ণগঞ্জ জেলার সমন্বয়ক হাফিজুল ইসলামের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক শিবনাথ চক্রবত্তী. বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলার সদস্যসচিব আবু নাঈম খান বিপ্লব, বাসদ নেতা সেলিম মাহমুদ, এস এম কাদির, সিপিবি নেতা বিমল কান্তি দাস, শাহানারা বেগম।

নেতৃবৃন্দ বলেন, ৭ জানুয়ারি আওয়ামী লীগ সরকার আরেকটি ভোটার বিহীন প্রহসনের নির্বাচন করেছে। জনগণ এই একতরফা নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেছে। নির্বাচন কমিশন ভোটের হার ৪১.৮% বললেও বাস্তবে ভোটের হার অনেক কম। কমিশন ৩ টায় বলেছে ২৬.৩৭%। ১ ঘণ্টায় কীভাবে এতো ভোট বাড়লো তা দেশবাসী দেখেছে। ভোটার উপস্থিতি খুবই নগন্য ছিল। সকাল থেকেই জাল ভোট দিয়েও ৩ টা পর্যন্ত তা ২৭% অতিক্রম করতে পারে নাই। শেষ বেলা সরকারের গু-াবাহিনী ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করে ব্যালটে ব্যাপক সিল মারে। বাস্তবে সরকারের পরিকল্পনা মতো কমিশন এই ভোট হার ঘোষণা করে।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার ২০১৪ সালে বিনাভোটে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়, ২০১৮ সালে নিশি ভোটে ক্ষমতায় এসেছে। ৭ জানুয়ারি ২০২৪ একতরফা আমি আর ‘ডামি’ নির্বাচন করে দেশের ইতিহাসে আর একটি কলঙ্ক স্থাপন করলো। বাংলাদেশের জনগণ অতীত অভিজ্ঞতা থেকে বুঝেছে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয় না। ফলে নির্দলীয় নিরপেক্ষ তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি জানিয়ে আসছিল। গণদাবি উপেক্ষা করে সরকার তার আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশন দিয়ে একতরফা ভোটারবিহীন নির্বাচন করেছে।

নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে ৭ জানুয়ারির একতরফা প্রহসনের নির্বাচন বাতিল ও তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচন দেয়ার দাবি জানান।

শেয়ার করুন