ডেস্ক রিপোর্ট

২৬ ডিসেম্বর ২০২৩, ১১:০১ অপরাহ্ণ

এ. কে. আজাদের নির্বাচনী অফিসে নৌকার কর্মীদের হামলা, আহত ৫

আপডেট টাইম : ডিসেম্বর ২৬, ২০২৩ ১১:০১ অপরাহ্ণ

শেয়ার করুন

অধিকার ডেস্ক: ফরিদপুর সদর-৩ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী এ. কে. আজাদের নির্বাচনী অফিসে সশস্ত্র হামলা চালিয়েছে নৌকা মার্কার প্রার্থী শামীম হকের কর্মী সমর্থকরা। এতে এ. কে. আজাদের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির ১৪নং ওয়ার্ডের যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুর রহমান জনকসহ অন্তত পাঁচ জন আহত হয়েছেন। এরমধ্যে আব্দুর রহমান জনকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ফরিদপুর পৌরসভার ১৪নং ওয়ার্ডের মাহমুদপুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে৷

এ. কে. আজাদের কর্মী আশরাফ হোসেন, পরেশ চন্দ্রসহ প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রতিদিনের মতো প্রচারণা শেষে আজও আমরা অফিসে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করছিলাম। এমন সময় পৌরসভার কাউন্সিলর মোবারক খলিফা, আতিয়ার শেখের নেতৃত্বে প্রায় দেড়-দুইশ মানুষ নৌকার স্লোগান দিয়ে আমাদের অফিসে অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় তারা আমাদের অফিসের বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা রামদা দিয়ে ঈগল মার্কার নির্বাচন পরিচালনা কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুর রহমান জনকের মাথায় রামদা দিয়ে আঘাত করে। তখনই সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

গুরুতর আহত আব্দুর রহমানের স্ত্রী পারভিন বলেন, আমার স্বামী অত্যন্ত শান্ত মেজাজের মানুষ। নৌকার সন্ত্রাসী লোকজনেরা রামদা দিয়ে তার মাথায় কোপ দিয়েছে। সে বাঁচবে কিনা জানি না। আমি এই সন্ত্রাসী হামলার বিচার চাই।

এ ব্যাপারে ফরিদপুর সদর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম বলেন, খবর পাওয়ার পর তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা গেছেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ও তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন