ডেস্ক রিপোর্ট

৬ জুন ২০২৪, ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ

আজিজ-বেনজীরই সরকারকে নির্বাচন পার করে দিয়েছিল : ফখরুল

আপডেট টাইম : জুন ৬, ২০২৪ ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ

শেয়ার করুন

অধিকার ডেস্ক: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার অনেককে ডিঙিয়েই আজিজকে সেনাপ্রধান করেছিল। আজ যিনি পুলিশের প্রধান তিনিও কিন্তু স্যাংশনপ্রাপ্ত। বেনজীরসহ ৯ জনকে স্যাংশন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এই হচ্ছে সরকারের অবস্থা।

তিনি বলেন, সাবেক সেনাপ্রধান আজিজের দুই ভাই চিহ্নিত সন্ত্রাসী তবুও তাকে আর্মি চিফ করা হয়েছিল। আজিজ-বেনজীরই সরকারকে নির্বাচন পার করে দিয়েছিল।

বুধবার (৫ জুন) জাতীয় প্রেস ক্লাবের আবদুস সালাম হলে জাতীয়তাবাদী ওলামা দল আয়োজিত জিয়াউর রহমানের ৪৩তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, গত ১৫ বছর ধরে আওয়ামী লীগের প্রেতাত্মারা আবার বাংলাদেশকে শাসন করতে শুরু করেছে। এই শাসন তারা করছে ভিন্ন পন্থায়। তারা একদলীয় শাসনের লক্ষ্যে গণতন্ত্রের একটা মসনদ তৈরি করছে। কিন্তু গণতন্ত্র তারা বিশ্বাস করে না। আজ যারা বিরোধী কথা বলে তাদের তুলে নিয়ে যায়।

তিনি বলেন, কয়েকদিন আগে প্রধানমন্ত্রী ভয়ঙ্কর একটা কথা বলেছেন। তিনি বলেছেন সাদা চামড়ার লোকেরা নাকি এখানে (বাংলাদেশে) এয়ারবেজ তৈরি করতে চায়। আর বাংলাদেশের একটা অংশ, চট্টগ্রাম ও মিয়ানমারের একটা অংশ নিয়ে নাকি খ্রিস্টান রাষ্ট্র করতে চায়। আমি গতকাল বলেছি, আজ আবার বলছি, প্রধানমন্ত্রীর উচিত হবে এই মুহূর্তে জনগণের সামনে এটার প্রকৃত ব্যাখ্যা করা। তারা (বিদেশি) কেন এটা চাইছে আর কেনই বা এতো দেরিতে আপনারা এটা প্রকাশ করছেন, সেটা আমরা জানতে চাই। কারণ এটা আমাদের বাংলাদেশের স্বাধীনতার, সার্বভৌমত্বের প্রশ্ন। আপনাদের হাতে স্বাধীনতা কোনোদিনই নিরাপদ নয়।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আজ যে ভয়াবহ দানব আমাদের বুকের ওপর চেপে বসে আছে তাদের সরাতে না পারলে কিন্তু স্বাধীনতা থাকবে না, সার্বভৌমত্ব থাকবে না। আমাদের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনতে হবে।

জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের সভাপতি মাওলানা আলহাজ মোহাম্মদ সেলিম রেজার সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক প্রফেসর ওবায়দুল ইসলাম, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম জামাল প্রমুখ।

শেয়ার করুন